অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম ২০২২

বছরের দুইটি ঈদ সহ অন্যান্য সময়ে একজন মানুষকে বাড়ি আসার পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করার প্রয়োজন হয়। কাজের সুবাদে হোক অথবা ভ্রমণ করার ইচ্ছায় হোক অথবা যেকোন প্রয়োজনে হোক আপনি যদি অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কেটে ভ্রমণ করতে চান তাহলে এই টিকিট কাটার নিয়ম আপনাকে জানতে হবে।

তাছাড়া অনেকের কাছে ট্রেন ভ্রমণ অনেক স্বাচ্ছন্দ্যময় বলে এবং ট্রেন ভ্রমণ খরচের দিক থেকে অনেকটাই সাশ্রয়ী বলে ট্রেন ভ্রমণ কে অনেকেই সাদরে গ্রহণ করেন। তাছাড়া এদের ভেতরে মানুষজনের বাড়ি আসার জন্য ট্রেনের মাধ্যমে আসার বিশেষ সুবিধা রয়েছে এবং আপনারা যদি ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম জানতে চান তাহলে বলব যে আজকের এই পোষ্ট আপনাদের জন্য করা হয়েছে।

অনলাইনে ট্রেনের ঈদের অগ্রিম টিকেট কাটার নিয়ম 2022

আসন্ন ঈদ উপলক্ষে এপ্রিল মাসের 23 তারিখ থেকে অনলাইনে ট্রেনের টিকেট এবং অফলাইনে ট্রেনের টিকিট বিক্রি শুরু করা হবে। ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম হিসেবে আপনারা যদি জানতে চান তাহলে 23 তারিখের টিকেট আপনারা কেটে 27 তারিখে ভ্রমণ করতে পারবেন এবং এভাবে আপনারা যে দিন টিকিট কাটবেন তার তিনদিন পরে ভ্রমণ করতে পারবেন।

তাই অনেকেই কাজের ব্যস্ততার কারণে হোক অথবা বিভিন্ন সমস্যার কারণে হোক কাউন্টারে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় ব্যয় করে টিকিট কাটতে চাই চান না। তাছাড়া বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ অনলাইনের মাধ্যমে টিকিট কাটার বিশেষ ব্যবস্থা রাখার জন্য আপনারা এই বিশেষ সুবিধা গ্রহণ করতে পারছেন এবং ঘরে বসেই টিকিট কাটতে পারছেন।

আরো পড়তে পারেন

অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকেট কাটার নিয়ম

অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার সময়

তবে অনলাইনে অগ্রিম টিকিট কাটতে গিয়ে আপনারা হয়তো অনেক সময় ঝামেলায় পড়েন এবং ওয়েবসাইটে চেক করে টিকেট কাটতে পারেন না। কারণ সকাল আটটা থেকে এই টিকেট কাটার সময় শুরু হয় এবং আটটার কয়েক মিনিটের ভিতরেই এটিকেট পুরোপুরিভাবে শেষ হয়ে যায়। তাই ফালতু কথা আমি বলব যে অনলাইনে যদি আপনারা ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটার নিয়ম জানতে চান তাহলে আগে জেনে নিন কোথায় গেলে আপনার মোবাইল ফোনে অথবা ডিভাইসে উচ্চগতিসম্পন্ন ইন্টারনেট কানেকশন সুবিধা পাওয়া যাবে। এতে আপনি ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে সাথে সাথে টিকিট কেটে নিতে পারবেন।

অতীতের যাবতীয় নিয়ম বাদ দিয়ে এখন নতুন নিয়ম অনুসরণ করে নতুন ওয়েবসাইটে অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কাটা যাবে। https://eticket.railway.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন এবং এখান থেকে আপনারা ট্রেনের টিকেট কাটতে পারবেন। ট্রেনের টিকিট কাটার ক্ষেত্রে আপনি কোথায় থেকে যাত্রা শুরু করতে চান সেটা প্রথমে উল্লেখ করুন। কোথায় যাত্রা শেষ করতে চান সেটা উল্লেখ করুন পরবর্তী ঘরে। এক্ষেত্রে আপনাদেরকে উল্লেখযোগ্য স্টেশনের নাম উল্লেখ করতে হবে নয়তো বা আপনারা সেই স্টেশনের নাম সেখানে খুঁজে পাবেন না। তারপরে আপনার যাত্রা তারিখ উল্লেখ করবেন।

You can Also Check:

E ticket railway gov bd Online Train Ticket Booking

shohoz Train Ticket shohoz.com

এখন আপনাকে পরবর্তী ধাপে যেতে হবে এবং সেখানে গিয়ে আপনি কোন শ্রেণীতে ভ্রমণ করতে চান তা নির্বাচন করবেন। এতে পরবর্তী পেজে যাবেন এবং সেখানে গিয়ে উল্লেখিত তারিখে কোন ট্রেন আপনার গন্তব্যের স্টেশন থেকে শুরু করে নির্দিষ্ট স্টেশনে নামিয়ে দেবে সেখানে ট্রেনের লিস্ট চলে আসবে। সেইসাথে উল্লেখিত ট্রেনের কতটি আসন ফাঁকা আছে তা আপনারা দেখতে পারবেন। এখন আপনাকে ফ্রেন্ড সিলেক্ট করতে হবে। সেখানে সিলেক্ট করে আপনারা যে সকল আসন সাদা রঙের আছে সেগুলো ফাঁকা সিট বুঝতে পারবেন। এখন আপনাকে এই সকল সিট সিলেক্ট করতে হবে এবং সিলেক্ট করে পরবর্তী ঘরে যেতে হবে।

অবশ্যই টিকিট কাটার ক্ষেত্রে আগে থেকে আপনাদেরকে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে এবং রেজিস্ট্রেশন কিভাবে সম্পন্ন করতে হবে তা আমাদের ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা আছে। আর যদি রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে না থাকেন তাহলে পুনরায় আপনাদেরকে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে পরবর্তী ধাপ এগিয়ে আপনাদের আবার টিকিট কাটার প্রক্রিয়া নিয়ম অনুসারে চলমান রাখতে হবে।

আপনি এই কাজ সম্পন্ন করার পর আপনার টিকিটের যাবতীয় তথ্য সম্প্রদান করে টিকিট কাটবেন। সেখানে টিকিটের যে চার্জ দেখানো হবে তার সঙ্গে 20 টাকা ব্যাংক চার্জ সংযুক্ত হবে। বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে চাইলে সেখানে একাউন্টের নাম্বার এবং পেমেন্ট এর জন্য পাসওয়ার্ড প্রদান করে আপনারা টিকিট কেটে নিন এবং কিছুক্ষণের মধ্যে আপনাকে টিকিট প্রস্তুতি পিডিএফ ফাইল আকারে ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে নির্দেশনা প্রদান করা হবে।

Digonto Ahmed

I am Digonto Ahmed. I read in Nasirabad University College. I like to travel. So I am sharing various information about Transport system in Bangladesh

Leave a Reply

Your email address will not be published.