চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা বাসের সময়সূচী, ভাড়া, অনলাইন টিকেট 2022

আপনাদের সকলকে স্বাগতম জানাচ্ছি চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা বাসের সময়সূচী ভাড়া অনলাইন টিকিট এই পোস্টে। আজকে আমাদের এই পোস্ট হতে আপনারা একটি বিষয়ে খুব ভালোভাবে জানতে পারবেন সেটি হল চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকা গামী যে কয়টি বাস রয়েছে সবকয়টি বাসের সময়সূচী ভাড়া এবং অনলাইন টিকিট কিভাবে কাটতে হয় সেই সম্পর্কে। অনেকেই এই বিষয়গুলো নিয়ে ভোগান্তিতে থাকেন।

যারা এই রুটে বেশি যাতায়াত করেন তাদের জন্য এটি একটি অনেক বড় চিন্তার বিষয়। অনেকে জানেন না কোন বাস ঠিক কখন যাতায়াত কর এবং কোন বাসের ভাড়া কত। এবং সেই বাসগুলো টিকিট অনলাইনে কাটা যায় সেই ব্যবস্থাও আপনারা জানেন না। আজকে আমরা সেই বিষয়গুলো বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করব।

চুয়াডাঙ্গা জেলা সম্পর্কে কিছু তথ্য

আপনারা সকলেই জানেন যে চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা দূরত্ব প্রায় 287 কিলোমিটার। আপনি তিন ভাবে এই দূরত্ব ঠিক করতে পারেন। আপনি ঢাকাকুষ্টিয়া হাইওয়ে দিয়ে যাতায়াত করতে পারেন। আপনি চাইলে ফরিদপুরমাগুরাযশোরখুলনা এই রোড দিয়ে যাতায়াত করতে পারেন। এই জেলা দেশের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের একটি জেলা। খুলনা বিভাগের মধ্যেই জেলা রয়েছে। জেলা বাংলাদেশের সর্বপ্রথম স্বীকৃতি লাভ করে 1984 সালে। আপনারা অনেকে একটি বিষয়ে জানেন না যে 1971 সালের 26 শে মার্চ মুক্তিযুদ্ধে সর্বপ্রথম কমান্ড দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে কমান্ড গঠিত হয়েছিল চুয়াডাঙ্গা জেলাতে।

বাংলাদেশে প্রথম যে ডাকঘর স্থাপন হয়েছিল সেটি চুয়াডাঙ্গা জেলাতে হয়েছিল। জীবিকা নির্বাহের জন্য এই জেলার মানুষ বহু ধরনের কাজ করে থাকে। প্রধান অর্থনৈতিক দিক দিয়ে হিসাব করলে এই জেলার মানুষ কৃষি কাজের ওপর বেশি নির্ভরশীল তার পাশাপাশি আরো রয়েছে দিনমজুর আরো রয়েছে ব্যবসায় চাকুরীজীবী ইত্যাদি। এই জেলাতে উৎপাদনশীল অনেক কারখানা রয়েছে। তুলার কল, চিনিকল, বিস্কুট কারখানা, স্পিনিং মিল, টেক্সটাইল মিল, অ্যালুমিনিয়াম কারখানা, ওষুধ তৈরির কারখানা সহ বহু কারখানা এই এলাকাতে রয়েছে।

বাংলাদেশের বহু কৃতি সন্তান এই জেলাতে জন্মগ্রহণ করেছে। ও বিশিষ্ট ব্যক্তি এই জেলাতে জন্মগ্রহণ করেছে। এই জেলাতে আরো রয়েছে বহু দর্শনীয় স্থান যেখানে মানুষ তাদের অবসর সময় আনন্দে কাটানোর জন্য বেড়াতে আসে।

এ জেলার মানুষ বিভিন্ন কাজে ঢাকা জেলার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করে। যদিও চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা এই রুটে ট্রেনের যোগাযোগ খুবই ভালো তারপরও মানুষ বাসে যাতায়াত করে। বাসে যাতায়াতের ক্ষেত্রে প্রায় 287 কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ঢাকাতে পৌঁছাতে হয়। বহু মানুষ তাদের জীবিকার কাজে এছাড়াও চাকুরীর কাজে ঢাকাতে নিয়মিত যাতায়াত করে। শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষার কাজে অথবা চাকরির খোঁজে ঢাকাতে যাতায়াত করে। এই সকল মানুষদের যাতায়াত আরও সহজ করার লক্ষ্যে আমরা আজকে নিয়ে এলাম চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা এই রুটে বাস এর সকল তথ্য।

চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা বাসের সময়সূচী কাউন্টার নম্বর এবং বাস এর নাম

রয়েল এক্সপ্রেস বাসের সকল তথ্য

আপনি যদি রয়েল এক্সপ্রেস বাসের চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা এই রুটে যাতায়াত করতে চান তাহলে আপনার জন্য এই তথ্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রয়েল এক্সপ্রেস ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা এই রুটে বিভিন্নভাবে তাদের বাস চালু রেখেছে। চলুন বাসগুলো সম্পর্কে জেনে আসি।

  1. ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা টু আলমডাঙ্গা
  2. ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা টু আলিপুর টু আসমানখালী টু হাটবোয়ালিয়া
  3. ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা টু মেহেরপুর টু মুজিবনগর
  4. ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা টু দামুড়হুদা টু দর্শনা
  5. ঢাকা টু ঝিনাইদহ টু কালিগঞ্জ টু কোটচাঁদপুর দর্শনা 
  6. ঢাকা টু ঝিনাইদহ মহেশপুর টু চুয়াডাঙ্গা
  7. চট্টগ্রাম টু ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুর টু দর্শন

আপনারা যারা এই পরিমাণে যাতায়াত করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য এই রোটগুলো খোলা রয়েছে এছাড়াও এখন আমরা আপনাদের রয়াল এক্সপ্রেস চুয়াডাঙ্গা সকল কাউন্টার সম্পর্কে ধারণা দিতে যাচ্ছি। বিভিন্ন লোকেশনে প্রায় দশটি মত কাউন্টার রয়েছে। আপনি এই জেলার বিভিন্ন প্রান্ত হতে বাসে উঠতে পারবেন। আপনি প্রায়ই দশটি জায়গা থেকে বাসে উঠতে পারবেন। চলুন কাউন্টার এবং কাউন্টারের নাম্বার গুলো দেখে আসি।

  • দারশান -01 730465501
  • জীবননগর – 01730465502
  • 7কার্পাসডাঙ্গা – 01756992214
  • ধামুরা ডাঙ্গা – 01756993019
  • চুয়াডাঙ্গা বারাবাজার -01715113321 
  • চুয়াডাঙ্গা বাস টার্মিনাল– 01760111 
  • আলমডাঙ্গা– 017622592
  • জংশন -01775113380
  • আসমানখালী -01775113390
  • হাটবোয়ালিয়া -01775113300

চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স বাসের সকল তথ্য

আপনি চুয়াডাঙ্গা থেকে ঢাকা টু চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স নামক এই বাসে যাতায়াত করতে পারেন। এই বাসটি তাদের এই রুটে এসি এবং ননএসি দুইটি সার্ভিসটি চালু রেখেছে।

  • গাবতলী কাউন্টার থেকে চুয়াডাঙ্গা উদ্দেশ্যে চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স এর বাস ছেড়ে আসে। আপনি এই কাউন্টারে সরাসরি ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে বহু তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন। এই কাউন্টারের মোবাইল নাম্বার হল 017111136963
  • চুয়াডাঙ্গা সদর চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স বাস কাউন্টার থেকে আপনি সরাসরি ফোনে যোগাযোগ করতে পারেন। আপনি এখান থেকেও বহু যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন। এই কাউন্টারের নাম্বার হলো 01711801281

দর্শনা বাস এর সকল তথ্য

আপনারা যারা চুয়াডাঙ্গাঢাকা রুটে দর্শনা বাস কোম্পানিতে যাতায়াত করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য এই অংশটুকু। তারা তাদের এসি এবং ননএসি বাস এর মাধ্যমে এই রুটে সেবা প্রদান করে আসছে। তাদের বাসগুলো খুবই ভাল মানের এবং খুবই আরামদায়ক যাত্রা দেয়। এই বাসগুলো তাদের বিভিন্ন কাউন্টার হতে যাত্রী উঠানো এবং নামানোর কাজ করে। আমরা এখন সে কাউন্টারে তথ্যগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করব।

  • চুয়াডাঙ্গা সদর কাউন্টার 0173911660 
  • চন্দ্র বাস কাউন্টার 01 721655 968
  • কর দ্বাসা টাঙ্গা কাউন্টার 01728738586
  • দর্শনা কাউন্টার 01711136981
  • জীবননগর কাউন্টার 01711162773
  • হাসদা কাউন্টার 01712640379

চুয়াডাঙ্গাঢাকা রুটে বাসের টিকিট মূল্য

  • এতক্ষণ আপনারা বাসের সকল তথ্য সম্পর্কে জানলেন। এখন আমরা জানাবো আপনাদের বাস অনুযায়ী বাসের ভাড়া। আপনারা ইতিমধ্যে জেনেছেন যে চুয়াডাঙ্গাঢাকা রুটে প্রায় 280 কিলোমিটার যাতায়াত করতে হয়। এর জন্য প্রত্যেকটি বাস তাদের নির্ধারিত ভাড়া রেখেছে। চলুন বাস ভেদে ভাড়া গুলো দেখে আসি।

চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স বাসের ভাড়া

  • চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স বাসে যদি আপনারা যাতায়াত করেন তাহলে ঢাকাতে যেতে আপনাকে নন এসি বাসে 500 টাকা ভাড়া দিতে হবে। আপনি যদি এসি বাসে যাতায়াত করতে চান তাহলে আপনাকে 1000 টাকা ভাড়া দিতে হবে।

রয়েল এক্সপ্রেস বাসের ভাড়া

  • আপনি যদি এই কোম্পানি কোন বাসে ঢাকাতে যাতায়াত করতে চান তাহলে আপনাকে নন এসি সিট এর জন্য 500 টাকা ভাড়া দিতে হবে। রয়েল এক্সপ্রেস এসি বাসে চুয়াডাঙ্গাঢাকা রুটে একটি টিকিট মূল্য 1000 টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

দর্শনডিলাক্স বাসের ভাড়া

  • এই বাসটি তাদের চুয়াডাঙ্গাঢাকা রুটে বাসের টিকিট নির্ধারণ করেছে 500 টাকা ননএসি সিটের জন্য। এসি সিট এর জন্য টিকিট মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে 1200 টাকা।

অনলাইনে চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা বাসের টিকেট

আপনারা যারা অনলাইনে চুয়াডাঙ্গা টু ঢাকা এই রুটের বাসের টিকেট সংগ্রহ করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমাদের এই অংশটুকু। আপনারা যদি ইতিপূর্বে বাসের টিকিট অনলাইনে না কেটে থাকেন তাহলে আমাদের সাহায্য নিয়ে এখন থেকে কাটতে পারবেন। আপনাকে আপনার এন্ড্রয়েড স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে কিভাবে বাসের টিকিট অনলাইন থেকে কাটা যায় সেটা আমরা দেখিয়ে দেব।

  • আপনার মোবাইল থেকে গুগল প্লে স্টোরে প্রবেশ করে ডাউনলোড করুন shohoz.com নামের এই অ্যাপটি।
  • একটি ডাউনলোডের পর আপনি প্রবেশ করে আপনার গন্তব্য শুরুর স্থান অর্থাৎ চুয়াডাঙ্গা এবং ঢাকা নির্বাচন করুন।
  • এর পরে আপনি বাস সিলেক্ট করুন এবং বাসের সিট সিলেক্ট করুন।
  • সর্বশেষ ধাপে আপনাকে অনলাইনের মাধ্যমে পেমেন্ট সম্পন্ন করতে হবে আপনি পেমেন্ট সম্পন্ন করলে আপনার বাসের টিকিট কাটা সম্পন্ন হবে।

এই সম্পন্ন করে আপনি যদি বুঝতে না পারেন তাহলে বিস্তারিত জানার জন্য অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন। আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে কিভাবে মোবাইল এর মাধ্যমে বাসের টিকিট কাটা যায় সে সম্পর্কিত সম্পূর্ণ একটি পোস্ট আপলোড করেছি। আপনারা সেই পোষ্টটি ভালোভাবে দেখলেই বুঝতে পারবেন এবং নিজে থেকে বাসের টিকিট কাটতে পারবেন।

Digonto Ahmed

I am Digonto Ahmed. I read in Nasirabad University College. I like to travel. So I am sharing various information about Transport system in Bangladesh

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.