যশোর টু ঢাকা বাসের সময়সূচী, ভাড়া, অনলাইন টিকিট 2022

অনুচ্ছেদ টিতে আপনারা যশোর টু ঢাকা এরোডে যে সকল বাস চলাচল করে তাদের সকল তথ্য পেয়ে যাবেন। যারা কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাদের কাছে এই তথ্যগুলো জানতে চেয়েছেন তাদের উদ্দেশ্যে আজকে আমাদের এই অনুচ্ছেদ তৈরি করা। আপনারা এই অনুচ্ছেদের মাধ্যমে প্রথমত জানতে পারবেন যশোর থেকে কোন কোন বাস ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসছে।

আপনারা আরো জানতে পারবেন এ বাসগুলোর ভাড়া কেমন হতে পারে। এছাড়াও এ বাসের টিকিট গুলো আপনারা অনলাইনে কিভাবে সংগ্রহ করবেন সেগুলো আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে আপনারা জানতে পারবেন। তাই যারা এই রুটে নিয়মিত যাতায়াত করেন এবং মাঝে মধ্যে যাতায়াত করেন তাদের জন্য এই তথ্যগুলো খুব ভাল তথ্য হতে পারে।

যশোর জেলার কিছু তথ্য

যশোর জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের খুলনা বিভাগের একটি প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক গুরুত্বসম্পন্ন অঞ্চল। এবং যশোর জেলার সবচেয়ে বড় প্রধান শহর যশোর। উপজেলার সংখ্যানুসারে যশোর বাংলাদেশের একটি এ শ্রেণীভূক্ত জেলা। এর জন্য একটি প্রচলিত বানান যশোহর। ব্রিটিশ আমলে বাংলাদেশের প্রথম শত্রুমুক্ত জেলা যশোর বিমানবন্দর এর সাহায্যে দেশের অভ্যন্তরে যাতায়াত করা হয়। ফুলের রাজধানী যশোর অবস্থিত। যশোর শহর ভৈরব নদীর তীরে অবস্থিত।

বিভাগীয় শহর খুলনা থেকে যশোরের দূরত্ব 52 কিলোমিটার। যশোর নামের উৎপত্তি সম্পর্কে বিভিন্ন মতামত মেলে। আরবি যশোর থেকে যশোর শব্দের উৎপত্তি বলে মনে করেন অনেকে। এর অর্থ সাঁকো। এককালে যশোরের সর্বোচ্চ নদীনালায় পরিপূর্ণ ছিল। নদী পাহাড়ের উপর সাঁকো বানানো হতো। পীর খান জাহান আলী বাঁশের সাঁকো নির্মাণ করে ভৈরব নদী পেরিয়ে মধু নিতে আসেন বলে জানা যায়। এ বাঁশের সাঁকো থেকে যশোর নামের উৎপত্তি।

যশোরের সাথে এর কাছাকাছি জেলাগুলির শক্তিশালী যোগাযোগ ব্যবস্থা রয়েছে পশ্চিম ও পূর্ব বাংলায় পরিবহনের জন্য এখানে সংযোজক আন্তর্জাতিক মহাসড়ক আছে। যশোর বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল ই ও ব্রডগেজ ভিত্তিক নেটওয়ার্কের একটি জংশন। নেটওয়ার্কটি ভারত পর্যন্ত প্রসারিত। রাজধানী ঢাকা এবং ভারতের কলকাতাকে সংযুক্ত করে পরিষেবাটি 2008 সালের এপ্রিল মাসে চালু করা হয়েছিল। যশোর জংশন দুটির মাঝখানে পড়েছে।

নগরীর কাছাকাছি যশোর বিমানবন্দর টি বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি বিমান ঘাঁটি। এটি দেশের একমাত্র বিমানবন্দর যেখানে বিমান বাহিনীর সকল বৈমানিকদের বিমান উড্ডয়নের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এটির রানওয়ে দিয়ে সামরিক বিমান সহ অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল করে। দৈনিক চলাচল করা অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য বিমানের মধ্যে রয়েছে ইউএসবাংলা, রিজেন্ট, নভো এবং বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।

যশোরের অর্থনীতি কে বেগবান করেছে মাছ চাষ। যশোরের অর্থনীতির সিংহভাগ আসে মাছ চাষ তথা চিংড়ি রপ্তানি করে। যশোরের ব্যবসা বাণিজ্যের প্রাণকেন্দ্র বলা হয় নোয়াপাড়া কে। এখানকার এবং আশেপাশের উদ্যোক্তাদের কারণে এখানে বিভিন্ন শিল্প কলকারখানা গড়ে উঠেছে। এছাড়া নৌপথে আমদানিরপ্তানি হয়ে থাকে। যা দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখে। বাংলাদেশের ফুলের রাজধানী যশোর। বাংলাদেশের অধিকাংশ ফুল মূলত যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীতে চাষ হয়।

এখানে উৎপাদিত ফুল সারাদেশে সরবরাহ করা হয়। এছাড়াও যশোরের অর্থনীতির অন্যতম প্রধান নিয়ামক দেশের প্রধান এবং সর্ববৃহৎ বেনাপোল স্থলবন্দর শার্শা উপজেলার সীমান্তবর্তী বেনাপোল পৌর শহরে অবস্থিত। ভারতবাংলাদেশ বাণিজ্যের সিংহভাগ এর মাধ্যমে সংঘটিত হয়। ওপারে আছে পেট্রোল। সরকারি আমদানি শুল্ক আহরণে বেনাপোল স্থলবন্দর ভূমিকা তাৎপর্যপূর্ণ। এখানকার মানুষের জীবিকার অন্যতম সূত্র বেনাপোল স্থলবন্দরের কাস্টমস ক্লিয়ারিং এজেন্ট এর কাজ।

তাই যশোর জেলার সাথে ঢাকা জেলার যোগাযোগ নিয়মিতই প্রয়োজন। বাসে যোগাযোগের ক্ষেত্রে যশোর থেকে ঢাকা জেলা অনেক দূরে। এই দীর্ঘ স্থলপথ বাসে যাতায়াত এর ক্ষেত্রে একটু কষ্ট হলেও বেশিরভাগ মানুষ বাসে যাতায়াত করে এখন আমরা সে বাসে যাতায়াত এর বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণ আপনাদের সামনে তুলে ধরব।

যশোর টু ঢাকা বাসের সময়সূচী

এই পর্যায়ে আমরা আমাদের এই অনুচ্ছেদের মূল অংশে চলে এসেছি। এ অংশে এখন আমরা আলোচনা করবো যশোর থেকে কোন কোন বাস ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায় এবং সেগুলো কখন ছেড়ে যায়। এছাড়াও সেই বাসগুলোর ঢাকাতে পৌছানোর সময় সম্পর্কে আমরা আলোচনা করব।

সকালের বাসের সময়সূচী

  • সোহাগ পরিবহন লিমিটেড যশোর টু ঢাকা তাদের অনেক ভালো বাস রেখেছে। তাদের একটি বাস রয়েছে যেটি সকাল 8:30 মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে এবং ঢাকা কাউন্টার দুপুর 12 টা 10 মিনিটে যাত্রা শেষ করে। এই বাসটি একটি নন এসি বাস।
  • এসপি গোল্ডেন লাইন লিমিটেড যশোর টু ঢাকা রুটে তাদের একটি এসি বাস চালু রেখেছে এই বাসটি যশোর থেকে ছেড়ে আসে সকাল 10 টা 1 মিনিটে এবং যাত্রা শেষ করে সন্ধ্যা 6 টা 10 মিনিটে।
  • এসপি গোল্ডেন লাইন লিমিটেড যশোর টু ঢাকা এ রোটে তাদের আরো একটি নন এসি বাস চালু রেখেছে। এই বাসটি যশোর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে তার যাত্রা শুরু করে সকাল 11:30 মিনিটে এবং গন্তব্য স্থানে পৌঁছাবে বিকেল 4:10 মিনিটে।
  • এসবি ট্রাভেলস লিমিটেড যশোর টু ঢাকা তাদের অনেক ভালো বাস রেখেছে। তাদের একটি বাস রয়েছে যেটি সকাল 11 টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছাড়ে আসে এবং ঢাকা তে পৌঁছায় সন্ধ্যা 6 টা 10 মিনিটে। এটি একটি এসি বাস সার্ভিস।

দুপুরের বাসের সময়সূচী

  • দুপুর বেলাতে যারা যাত্রা করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য এসপি গোল্ডেন লাইন নিয়ে এসেছে যশোর টু ঢাকা রোড একটি নন এসি বাস। এই বাসটি দুপুর 12:30 এ ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে এবং বাসটি বিকেল 4 টা 10 মিনিটে এসে ঢাকাতে তার যাত্রা শেষ করে।
  • দুপুর বেলাতে টুংগীপাড়া এক্সপ্রেস যশোর টু ঢাকা রুটে তাদের একটি নন এসি বাস চালু রেখেছে। এই বাসটি যশোর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবে দুপুর 2 টায় এবং ঢাকাতে তার যাত্রা শেষ করবে রাত 9 টা 30 মিনিটে।

রাতের বাসের সময়সূচী

  • রাতে হানিফ এন্টারপ্রাইজ নিয়ে এসেছে তাদের যশোর টু ঢাকা বাস সার্ভিস। এই বাসটি একটি নন এসি বাস। যা রাত 8:10 এ যশোর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিবে এবং ঢাকাতে পৌঁছাবে ভোর 4 টা 10 মিনিটে।
  • হানিফ এন্টারপ্রাইজ এর আরো একটি বাস রয়েছে। বাসটি রাত 8:30 মিনিটে যশোর থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিবে এবং ভোর 4 টা 20 মিনিটে ঢাকাতে পৌঁছাবে।
  • আপনারা যারা রাতে যাত্রা করতে চাচ্ছেন তারা এই বাসটিতে খুব আরামদায়ক ভাবে যাত্রা করতে পারেন। রাতের যাত্রায় যশোর টু ঢাকা এই রোডে এসপি গোল্ডেন লাইন তাদের একটি এসি বাস সার্ভিস চালু রেখেছে। এই বাসটি যশোর থেকে রাত 10:20 এ ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেবে এবং ঢাকাতে পৌঁছাবে সকাল 6:10 মিনিটে।
  • হানিফ এন্টারপ্রাইজ একটি এসি বাস চালু রেখেছে। এই বাসটি যশোর থেকে ছাড়বে রাত 10:20 এ এবং ঢাকাতে  যাবে ভোর 4:00 টায়।

যশোর টু ঢাকা বাসের ভাড়া

যশোর টু ঢাকা  বাসের ভাড়া গুলো উল্লেখ করা হলো আমরা এসি এবং ননএসি ভেদে ভাড়া করে দিয়েছি।

এসি বাসের ভাড়া

  • যারা এই রুটে এসি বাসে যাতায়াত করতে পছন্দ করেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি যে যশোর টু ঢাকা যাওয়ার জন্য এসি বাসের ভাড়া হানিফ এন্টারপ্রাইজ এর জন্য আপনাকে দিতে হবে1100 টাকা এবং এসপি গোল্ডেন লাইন এর জন্য আপনাকে দিতে হবে 1200 টাকা।

নন এসি বাসের ভাড়া

  • যশোর টু ঢাকা রুটে যারা নন এসি বাসে যাতায়াত করতে পছন্দ করেন তাদের জন্য প্রতি টিকিটের মূল্য ধার্য করা হয়েছে 480 থেকে 600 টাকা।

অনলাইনে যশোর টু ঢাকা বাসের টিকিট

অনলাইনে বাসের টিকিট কাটা যায় এটা অনেকেই জানেনা। আপনি যদি যশোর জেলা থেকে ঢাকার অনলাইন বাসের টিকিট কাটতে যান তাহলে আপনি shohoz.com এর প্রবেশ করতে পারেন। খুব সহজে মাত্র 3 টি ধাপ অবলম্বন করে আপনি টিকিট কেটে ফেলতে পারেন। যদি না পারেন তাহলে আমাদের ওয়েবসাইট ভালো করে ভিজিট করুন এবং এ সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে বের করে তা দেখে নিন। যে কেউ খুব সহজে আমাদের দেখানো পদ্ধতি অনুযায়ী shohoz.com এর মাধ্যমে আপনার বাসের টিকিট কাটতে পারবেন।

Digonto Ahmed

I am Digonto Ahmed. I read in Nasirabad University College. I like to travel. So I am sharing various information about Transport system in Bangladesh

Leave a Reply

Your email address will not be published.